চিত্র-বিচিত্র

গাধারাও পাজামা পরে!

  

পিএনএস ডেস্ক: গাধা বিশ্বের সবচেয়ে কর্মক্ষম প্রাণী। একটা সময় গাধার এই পরিশ্রম করার ক্ষমতার জন্যই কৃষিকাজ থেকে মালপত্র বয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তেই গাধার চাহিদা ছিল আকাশছোঁয়া। গাধার পিঠে চড়ে মাইলের পর মাইল পেরিয়ে যেতেন অনেকে। কিন্তু এই গাধার গুরুত্ব এখনও একটুও কমেনি। এরা হলো ‘পোইটু গাধা’। আকারে সাধারণ গাধার তুলনায় বেশ খানিকটা বড় এবং লম্বা। তবে সারা বিশ্বে এদের সংখ্যা এখন ‘হাতে গোনা’। ২০০৫ সালে হিসেব করে দেখা গেছে, সারা বিশ্বে পোইটু গাধার সংখ্যা মাত্র ৪৫০।পোইটু এক ধরনের

শয়তানের ব্রিজ!

  

পিএনএস ডেস্ক:ডেভিলস ব্রিজ। শয়তানের হাতে বানানো ব্রিজ। ভক্তের ডাকে সাড়া দিয়ে কোনও এক মধ্যরাতে হাজির হয়েছিল শয়তান। মন্ত্র দিয়ে নাকি বানিয়ে ফেলেছিল এই ব্রিজ।পর্তুগালের মন্টেলেগ্রি এবং ভেইরা ডি মিনহো’র সীমানায় রয়েছে এই ব্রিজটি। এই ব্রিজকে নিয়ে এমনই শোনা যায়। এলাকার মানুষরা তাই সচরাচর রাত হলে ব্রিজের দিকে আসেন না।ব্রিজটি মধ্যযুগে বানানো হয়েছে। খরস্রোতা রাবাগাও নদীর উপর পাথর দিয়ে তৈরি। প্রচলিত রয়েছে, এক রাতে নাকি এক ডাকাত এই পাহাড়ি জঙ্গলের ভিতর দিয়ে পালাচ্ছিল। রাবাগাও নদীর কাছে এসে সে

গর্ভের শিশুর হাতে ‘টিকটিকি’র মতো পেশী

  

পিএনএস ডেস্ক: গর্ভের শিশুদের হাতে টিকটিকি জাতীয় অতিরিক্ত কিছু পেশী থাকে এবং তাদের জন্মের আগেই এসব ঝরে যায় বলে সম্প্রতি এক গবেষণায় উঠে এসেছে। ডেভেলপমেন্ট নামের একটি জর্নালে গবেষণার এই ফলাফলটি প্রকাশিত হয়েছে।ওই গবেষণায় বলা হয়েছে, কেনো এসব পেশী তৈরি হয় এবং শিশুর জন্মের আগেই সেগুলো ঝেড়ে ফেলা হয় তা পরিষ্কার নয়। তবে, এসব পেশী ক্ষণস্থায়ী হলেও, বিবর্তনের এই বিষয়টি সম্ভবত সবচেয়ে প্রাচীন কোনো অবশেষ, যা এখনও মানুষের শরীরে রয়ে গেছে।বিজ্ঞানীরা বলছেন, গর্ভে বেড়ে ওঠা এরকম ১৫টি শিশুর

অবাক কাণ্ড, নানা রঙের ডিম পাড়া মুরগি!

  

পিএনএস ডেস্ক : এ মুরগি বিখ্যাত তার নানা রঙের ডিমের জন্যই। সাদা, বাদামি, হাল্কা নীল, হালকা গোলাপী বা হালকা সবুজ রঙের ডিম পাড়ে এই ইস্টার এগার্স। এর জন্য তাকে কোনো ওষুধ খাওয়ানোর প্রয়োজন হয় না এদের।ইস্টার এগার্স ছাড়াও এমন রঙিন ডিম পাড়ে আরও বেশ কয়েকটি প্রজাতির মুরগি। এর মধ্যে রয়েছে চিলির শঙ্কর প্রজাতির অ্যারোকানাস মুরগি, ব্রিটেনের ক্রিম লেগবার মুরগি বা ফ্রান্সের মারানস প্রজাতির মুরগি।অ্যারোকানাস প্রজাতির মুরগির ডিমের রং হাল্কা নীল বা আকাশি। এই মুরগির কানের ঠিক দুই পাশে অদ্ভুত ধরনের পালক

৮১ বছরের বৃদ্ধাকে বিয়ে করলেন ২৪ বছরের তরুণ!

  

পিএনএস ডেস্ক:সেনাবাহিনীর বাধ্যতামূলক চাকরি এড়াতে নিজের চেয়ে ৫৭ বছরের বড় এক নারীকে বিয়ে করেছেন ২৪ বছর বয়সী এক ইউক্রেনীয় যুবক। দুই বছর ধরে সংসারও করছেন তারা। এ ঘটনায় অনলাইনে ব্যাপক সমালোচনার শিকার হলেও দেশটির প্রচলিত আইনে কোনো বাধা নেই।আইনগতভাবে সে তার অক্ষম স্ত্রীর দেখভালকারী। তাদের বিয়ের বৈধ কাগজপত্রও রয়েছেব্রিটিশ গণমাধ্যম মেট্রো অনলাইনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের আইনানুযায়ী ২০১৭ সালের শেষদিকে বাধ্যমূলক সেনাবাহিনীতে যোগদানের নোটিশ পান ভিনিস্তা শহরের যুবক আলেক্সান্ডার

যে ১০ দেশ টাকায় কেনাবেচা হয়েছে!

  

পিএনএস ডেস্ক: দেশের পরিসর বাড়াতে কানাডার উত্তর-পূর্বে অবস্থিত গ্রিনল্যান্ড কিনতে চেয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে জানেন কি? দেশ কেনাবেচা এই প্রথম নয়, দেশের আয়তন বাড়াতে আগেও হয়েছে কেনাবেচা।এমন ১০টি দেশ টাকায় কেনাবেচা হয়েছে-১. ১০৯৭ থেকে ১১০১-এর মধ্যে বর্জেসের রাজা ওডো আরপিনাস তার রাজত্ব থেকে বর্জেস এবং ডান, তৎকালীন ফ্রান্সের রাজা প্রথম ফিলিপকে বিক্রি করে দেন। বিনিময়ে তিনি পান ৬০ হাজার শিলিং। ইতিহাসবিদরা মনে করেন, ১১০১ সালে ধর্মযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন ওডো আরপিনাস। সে জন্য

মুখে মাকড়সা চড়লে ‘রিল্যাক্স’ অনুভূত হয় এই নারীর

  

পিএনএস ডেস্ক: সাধারণত মানুষ যে প্রাণী বা পোকামাকড়দের সব থেকে বেশি ভয় পায় মাকড়সা তার মধ্যে অন্যতম। কিন্তু সেই মাকড়সাকেই যদি কেউ চোখেমুখে চড়তে দেন বা নাকে ঢুকতে দেন তাহলে কী করবেন? আঁতকে উঠবেন! এমনই করেন অস্ট্রেলিয়ার এক নারী।অস্ট্রেলিয়ার প্রাণী-প্রেমী টার্নি রোবাক (২৭)। তার মুখে অবলীলায় চড়ে বেড়ায় মাকড়সা। আসলে তিনিই এই মাকড়সাগুলোকে চড়তে দেন। আর এটি নাকি তাকে রিল্যাক্স হতে সাহায্য করে। মুখে মাকড়সা চরছে, এমন বেশ কয়েকটি ছবি, ভিডিও নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পোস্টও করেছেন

এক কয়েনের দাম এক লাখ!

  

পিএনএস ডেস্ক: একটি কয়েনের দাম এক লাখ টাকা। এরপরের একটি কয়েনের দাম ৫০ হাজার। এ যেন রূপকথার গল্প।মতিঝিল ক্লাবপাড়ার ক্যাসিনোর জুয়ার বোর্ডে সর্বোচ্চ ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ কয়েনের দাম। থরেথরে সাজানো থাকে জুয়ার বোর্ডের এসব কয়েন।ক্লাবে প্রবেশের পর ক্যাশ কাউন্টারে টাকা জমা দিয়ে এ কয়েন সংগ্রহ করতে হয়। এছাড়াও রয়েছে ১০ হাজার, পাঁচ হাজার ও সর্বনিম্ন এক হাজার টাকার কয়েন।সরেজমিনে ক্লাবগুলো ঘুরে ও আটক ব্যক্তিদের সঙ্গে আলাপকালে জানা গেছে, এখানে প্রতিরাতে জুয়ার বোর্ডে কোটি কোটি টাকার লেনদেন

এক লাড্ডুর দাম সাড়ে ১৭ লাখ!

  

পিএনএস ডেস্ক: মিষ্টদ্রব্যের মধ্যে অন্যতম সুস্বাদু লাড্ডু। ডায়াবেটিস নেই, অথচ লাড্ডু একবার খেলে আর খেতে চাইবেন না- এমন মানুষ খুব কম খুঁজে পাওয়া যাবে। কিন্তু তাই বলে হীরের দামে তো আর লাড্ডু কিনে খাওয়া সম্ভব নায়। নেহায়েত কোটিপতি লোক ছাড়া এমন শখ কেইবা করবে। যেখানে একটি মাত্র লাড্ডুর দাম উঠেছে ১৭ লাখ ৬০ হাজার টাকা! জিভে জল চলে এলেও সেই দিল্লিকা লাড্ডু তো আর সবার ভাগ্যে নেই। এবার দিল্লির সেই লাড্ডুর সীমানা পেরিয়ে গেছে ভারতেরই হায়দ্রাবাদের বালাপুরের এক লাড্ডু। যেখানে এক লাড্ডু কিনতে অনেক

যে কারণে লিথিয়াম সোনার চেয়েও দামি!

  

পিএনএস ডেস্ক:মানুষ লিথিয়ামের কথা জানে দুইশ' বছর ধরে। তবে এর গুরুত্ব বুঝতে শুরু করছে মাত্র কিছুদিন আগে, যখন থেকে লিথিয়াম ব্যবহৃত হচ্ছে ব্যাটারি বানাতে। অনেকেই ইতিমধ্যে একে ডাকতে শুরু করেছেন এ যুগের স্বর্ণ বলে! প্রাচীনকালে কোনো পদার্থের দাম নির্ধারিত হতো তার স্থায়িত্ব দিয়ে। তাই ধাতব পদার্থের দাম ছিল সবচেয়ে বেশি। যে ধাতুগুলো সহজে বাতাস, পানি বা পরিবেশের সঙ্গে বিক্রিয়া করে না সেগুলোর মূল্যই ছিল সবচেয়ে বেশি। যেমন স্বর্ণ সহজে কারও সঙ্গেই বিক্রিয়া করে না, তাই তা অনেক দামি। অপরদিকে,

Developed by Diligent InfoTech