চিত্র-বিচিত্র

মানব শরীরের অদ্ভুত কিছু ক্ষমতা

  

পিএনএস ডেস্ক : সিনেমার ‘সুপারহিরোদের’ মতো বাস্তবে কিছু মানুষের অদ্ভুত ক্ষমতা থাকে, যাদের বলা হয় ক্ষণজন্মা। এই সব মানুষদের বিশেষ ওই গুণের কথা জানুন রিডার্স ডাইজেস্টের প্রতিবেদন থেকে।কম ঘুমে রাত পার: পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার এক শতাংশ মানুষ কম ঘুমিয়ে রাত পার করতে পারে। এমনিতে সুস্থ থাকার জন্য একজনকে সাত থেকে আট ঘণ্টা করে ঘুমাতে হয়। কিন্তু যাদের শরীরে DEC2 জিন থাকে, তারা নিয়মিত ৬ ঘণ্টা ঘুমিয়ে সুস্থভাবে বাঁচতে পারেন। মার্গারেট থ্যাচার এবং উইনস্টন চার্চিলের মতো বিখ্যাত মানুষেরা এমন

বাংলাদেশেও ছিল এই সবচেয়ে ছোট হরিণ!

  

পিএনএস ডেস্ক: ৩০ বছর পর সম্প্রতি ফিরে পাওয়া ভিয়েতনামের এই (ছবির) মাউস ডিয়ারের মত ছোট হরিণ বাংলাদেশেও ছিল। যা বাংলাদেশে ছাগুলে লাফা, শোস বা শোশা নামে পরিচিত ছিল। এর ইংরেজি নাম মাউস ডিয়ার। বিশ্বের ক্ষুদ্রতম ক্ষুরযুক্ত স্তন্যপায়ী প্রাণি মাউস ডিয়ার আঁকারে প্রায় বুনো খরগোশের মতো। আবার দেখতে অনেকটা হরিণের মতো। তবে প্রথম দেখায় অনেকেই একে বিরল প্রজাতির খরগোশ বা হরিণ ভেবে ভুল করতে পারেন।এদের দৈহিক দৈর্ঘ ৫৭ সেন্টিমিটার, লেজের দৈর্ঘ ২.৫ সেমি। একটি প্রাপ্তবয়স্ক শোসার ওজন প্রায় ৭ পাউন্ড। এদের আছে

বিয়ের আগে দাম্পত্য জীবন নিয়ে ৩ মাসের বাধ্যতামূলক কোর্স!

  

পিএনএস ডেস্ক : কোনো যুগল ইচ্ছা করল বিয়ে করবে কিংবা পারিবারিকভাবে বিয়ের দিনক্ষণ সব ঠিকঠাক, এরপরেও কিন্তু বিয়ে করা যাবে না।বিয়ের আগে একটি কোর্স করতে হবে, সেটির সার্টিফিকেট দেখানোর পরেই মিলবে বিয়ের অনুমতি।ইন্ডিয়া টাইমস জানাচ্ছে, ২০২০ সাল থেকে এমন নিয়ম করতে যাচ্ছে ইন্দোনেশিয়া। বিয়ের আগে হবু বর-কনেকে করতে হবে তিন মাসের একটি প্রি-ওয়েডিং কোর্স।গত সপ্তাহে এমন একটি ঘোষণা দেন দেশটির মানবসম্পদ উন্নয়ন এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী মুহাদজির এফেন্দি।এই কোর্সে তরুণ-তরুণীদের বিয়ের আগে দাম্পত্য

গাঁজা টানার চাকরি, মাসে বেতন আড়াই লাখের বেশি

  

পিএনএস ডেস্ক : কোন গাঁজা কেমন স্বাদের, কোনটির কেমন গুণাগুণ, সেটা ঠিক মতো বলে দেওয়ার জন্য দুই লাখ ৫৪ হাজার টাকার চাকরি অপেক্ষা করছে। চিকিত্সার কাজে ব্যবহৃত গাঁজা বিক্রয়কারী একটি কম্পানি এমন এক ব্যক্তিকে খুঁজছে। তবে চাকরির একটি শর্তও রয়েছে।মার্কিন সংবাদমাধ্যম 'এবিসি ১৩' জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের গাঁজা বিশেষজ্ঞকে মাসে তিন হাজার ডলার (বাংলাদেশি টাকায় যা দুই লাখ ৫৪ হাজার চারশ ২০ টাকা) বেতন দিতে রাজি। ‘আমেরিকান মারিজুয়ানা’ বিভিন্ন ধরনের গাঁজা এবং ভাং জাতীয় দ্রব্য নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে।

পাখির মতোই উড়তে পারে যে মাছ

  

পিএনএস ডেস্ক : সাগরের নীল জলরাশির উপর ঝাঁকে ঝাঁকে মাছ এদিক ওদিক উড়ে বেড়াচ্ছে। শিকারের উদ্দেশ্যে টোপ ফেলতেই হিংস্র গতিতে ছুটে আসছে আপনার দিকে। নাহ, এটা কোন ভৌতিক ছবির কাহিনী না। বাস্তবেও এমন কিছু মাছ আছে আমাদের এই পৃথিবীতে যাদের উড়ন্ত মাছ বা ফ্লাইং ফিস বলা হয়। এরা পাখির মত উড়তে না পারলেও জলের উপর বেশ লাফিয়ে লাফিয়ে চলে। শত্রুর হাত থেকে মুক্তি পাবার জন্য তারা এই পদ্ধতি অবলম্বন করে।পৃথিবীর অনেক জায়গায় ফ্লাইং ফিস ‘ফ্লাইং কড’ নামেও পরিচিত। এরা অ্যাক্সোকোয়িটাইড গোত্রের। অ্যাক্সোকোয়িটাইড

অবাক কাণ্ড! উপরে ওঠে এই ঝর্নার পানি (ভিডিও)

  

পিএনএস ডেস্ক : আমরা সবাই জানি মাধ্যাকর্ষণের কারণে পানি নিচের দিকেই প্রবাহিত হয়। কিন্তু আয়ারল্যান্ডে এমন একটি জলপ্রপাতের ছবি সামনে এল যা, দেখলে অবাকই হবেন। যেখানে পানি নিচে যাওয়ার পরিবর্তে উঠে আসছে উপরে!সম্প্রতি ইউটিউবে একটি ভিডিও আপলোড করা হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে, গভীর খাদ। নিচে পাড়ে এসে ধাক্কা দিচ্ছে সমুদ্রের জলরাশি। ক্যামেরা এবার বাঁ দিকে ঘুরতেই দেখা যাচ্ছে একটি জলপ্রপাত। কিন্তু স্বাভাবিকভাবে পানি যে রকম নিচে নামে, এখানে তেমনটা দেখা যাচ্ছে না। দেখা যাচ্ছে, পানি উপরে উঠে আসছে।তার

‘মানুষমুখো মাছ’! তোলপাড় সোশাল মিডিয়া

  

পিএনএস ডেস্ক: রূপকথার গল্পে আমরা অসংখ্যবার মানুষরূপী মাছ বা মৎস্যকন্যার কথা শুনেছি। কিন্তু, বাস্তবে এর অস্তিত্ব নেই বললেই চলে।কিন্তু সবার ধারণাকে ভুল প্রমাণ করে এবার দেখা মিলল মানুষমুখো মাছের। একটি লেকে সেই মাছের ঘুরে বেড়ানোর ভিডিও ইতিমধ্যেই অনলাইন দুনিয়ায় ভাইরাল।জানা যায়, চিনের দক্ষিণ প্রান্তে অবস্থিত কানমিং শহর সংলগ্ন মিয়াও গ্রামের একটি লেকে মানুষমুখো মাছের দেখা মেলে। সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিও দেখে নেটিজেনরা বলছেন হ্যারি পটারের গল্পে থাকা ভলডেমর্ট চরিত্রটি মাছ রূপে

মানুষ-মুখো মাছ!

  

পিএনএস ডেস্ক : মানুষ-মুখো মাছ, যা দেখলে অবাক হওয়ারই কথা। চীনের এক লেকে এমনই এক মাছের দেখা মিলেছে। আর সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আসতেই হইচই পড়ে গেছে। সবাই ওই মুখের মধ্যে নানা পরিচিত জনের ছায়া দেখতে পাচ্ছেন। আসলে মাছটির মুখ অনেকটাই মানুষের মতো।জানা গেছে, ভিডিওটি তুলেছেন দক্ষিণ চীনের এক বাসিন্দা। কানমিং শহরের একটি লেকে মাছটি দেখেন তিনি। কালবিলম্ব না করে ভিডিও করে নেন এবং তা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। আর তার পর থেকেই কমেন্টের বন্যা। অমুক বা তমুকের মতো দেখতে বলে যেমন অনেকে কমেন্ট করেছেন

কানে আরশোলার বাসা!

  

পিএনএস ডেস্ক : চীনের ২৪ বছর বয়সী এলভির ডান কানে বেশ কয়েকদিন ধরেই প্রচণ্ড ব্যথা হচ্ছিল। সেই ব্যথা চরমে ওঠায় বিছানায় শুয়ে যন্ত্রণায় ছটফট করছিলেন তিনি। সে সময় তার পরিবারের লোকজন টর্চের আলোতে দেখেন, এলভির কানের মধ্যে রয়েছে বড় আকারের আরশোলা!এরপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় হুইজহাউ শহরের সানহে হাসপাতালে। সেখানে তার কান পরীক্ষা করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। আর সেটা করতে গিয়েই চমকে যান চিকিৎসকরা। তারা দেখেন, এলভির কানের মধ্যে আরশোলার পুরো পরিবার রয়েছে।সানহে হাসপাতালের চিকিৎসক ঝং ইজিং বলেন, কানে প্রচণ্ড

৫০টি ডিম খাওয়ার বাজি, ৪১টি খাওয়ার পরেই প্রাণ হারালেন যুবক!

  

পিএনএস ডেস্ক : যুগ পাল্টেছে, সব কিছুর সাথে বাজি ধরাও স্মার্ট হয়েছে। সেটা হলো অনলাইনে বাজি ধরা। এক্ষেত্রে আপনি দেশ বিদেশের সবার সাথে বাজি ধরতে পারবেন নিশ্চিতে।বন্ধুর সঙ্গে বাজি ধরেছিলেন ৫০টি ডিম খাওয়ার। খেতে পারলেই মিলবে ২০০০ টাকা। ৪১টি খেয়েও ফেলেছিলেন। কিন্তু ৪২তম ডিম খাওয়ার সময় প্রাণ হারালেন এক ব্যক্তি। উত্তরপ্রদেশের জৌনপুর জেলার শাহগঞ্জ থানা এলাকার এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। মৃত ব্যক্তির নাম সুভাষ যাদব (৪২)।শাহগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার জেপি সিংহ জানিয়েছেন, এক বন্ধুর

Developed by Diligent InfoTech