স্বাস্থ্যকথা

৩ উপকরণেই বাড়িতে তৈরি হবে স্ট্রবেরি জ্যাম!

  

পিএনএস ডেস্ক : বিভিন্ন ধরনের জ্যাম খেতে পছন্দ করেন৷ তালিকায় কি রয়েছে স্ট্রবেরি জ্যাম? তাহলে দেরি না করে চটপট নিচের রেসিপিতে চোখ বুলিয় নিন৷ বাজারচলতি স্ট্রবেরি জ্যাম আপনি তৈরি করে ফলতে পারবেন বাড়িতে বসেই, যখন তখন৷ ইচ্ছে আত্মীয়, প্রতিবেশীকেও খাওয়াতে পারেন৷ এর জন্য লাগবে মাত্র ৩টি উপকরণ৷স্ট্রবেরি জ্যাম তৈরির উপকরণ:২ পাউন্ড স্ট্রবেরি,৪ কাপ চিনি পাউডার বা গুঁড়ো করা,৩টি লেবুর রস৷স্ট্রবেরি জ্যাম তৈরির পদ্ধতি:স্ট্রবেরি খেতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ হাতে গোনা৷ অবশ্য অনেকের অনেক ফলে

ডায়রিয়া প্রতিরোধে...

  

পিএনএস ডেস্ক: গরম পড়তে শুরু করেছে। সেই সঙ্গে বাড়তে শুরু করেছে ডায়েরিয়ার0 প্রকোপ। একটুখানি অসাবধানতা থেকেই হতে পারে এই অসুখ। তাই থাকতে হবে সতর্ক। চলুন জেনে তেমনই কিছু সতর্কতা-বিশুদ্ধ পানি পান করুন। অন্য কোনো উপায় না থাকলে পানি ফুটিয়ে খাওয়া অভ্যাস করুন। মনে রাখবেন ডায়েরিয়া কিন্তু পানিবাহিত রোগ।খাওয়ার আগে এবং শৌচকর্মের পরে হাত ভালো করে ধুয়ে নিন সাবান দিয়ে। এছাড়াও শিশুর ডাইপার পাল্টানো কিংবা পোষা প্রাণির সঙ্গে খেলাধুলোর পরেও হাত ধুয়ে নিন। অন্তত ২০ সেকেন্ড ধরে ভালো করে সাবান দিয়ে হাত কচলে

যেসব ফলে ওজন বাড়ে

  

পিএনএস ডেস্ক: ওজন কমানোর জন্য ডায়েটে বেশি পরিমাণ ফল রাখার কথা বলেই থাকেন নিউট্রিশনিস্টরা। কিন্তু ফল স্বাস্থ্যকর হলেও এমন কিছু ফল রয়েছে যেগুলোতে শর্করার মাত্রা বেশি। তাই ওজন কমানোর পথে বাধা বয়ে দাঁড়ায়।কলা: কলার মধ্যে শর্করার মাত্রা বেশি। ফাইবার থাকলেও আরও অনেক ফল রয়েছে যার মধ্যে একই পরিমাণ ফাইবারের সঙ্গে শর্করার পরিমাণ অনেক কম।ড্রাই ফ্রুটস: ড্রাই ফ্রুটসকে স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস হিসেবে গণ্য করা হলেও ড্রাই ফ্রুটের টাটকা ফলের তুলনায় দ্রুত রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়িয়ে দেয়।পেঁপে: এই ফলে

পরোক্ষ ধূমপানে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে গর্ভের শিশু

  

পিএনএস ডেস্ক: গুলশানের এক বেসরকারি ব্যাংকে কর্মরত লামিছা রহমান। তিনি জানান, ‘তার স্বামী নিয়মিত মদ্যপান করতেন, তবে সেটা ছিল বাইরে। কিন্তু ঘরে প্রচুর ধূমপান করতেন। দিনে কমপক্ষে ২ থেকে ৩ প্যাকেট। তিনি গর্ভবতী হওয়ার পরও স্বামী ধূমপান বন্ধ করেননি। সিগারেটের বিষাক্ত ধোঁয়ায় লামিছার শ্বাস নিতে কষ্ট হতো, সারাক্ষণ মাথা ব্যথা লেগে থাকতো। এভাবে চললো ৩ মাস। একদিন পেটে প্রচুর ব্যথা হলে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন তিনি। হাসপাতালে ভর্তি হয়ে তিনি সুস্থ হলেও গর্ভের সন্তানটি নষ্ট হয়ে যায়।চিকিৎসক জানালেন, ‘পরোক্ষ

উচ্চ রক্তচাপ কমাতে কিসমিস

  

পিএনএস ডেস্ক: কিসমিস শুধু স্বাদেই অতুলনীয় নয়, রয়েছে তার বহুমূখী গুণ। বিশেষ করে নারীদের তো নিয়ম করে কিসমিস অথবা কিসমিস ভেজানো পানি খাওয়া উচিত। কারণ- সমীক্ষা বলছে প্রত্যেক নারীরা দিনে নির্দিষ্ট পরিমাণ কিসমিস খাওয়া উচিত। এতে শরীর প্রয়োজনীয় ক্যালোরি পাবে কিন্তু কোন ফ্যাট থাকবে না।হৃৎপিণ্ডের সমস্যা যাদের রয়েছে তাদেরও কিসমিস খাওয়া উচিত। কারণ তা হৃৎস্পন্দন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। কিসমিস রক্তে সোডিয়ামের পরিমাণ কমিয়ে দিয়ে উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। লিভার

যে কারণে শারীরিক স্পর্শ গুরুত্বপূর্ণ

  

পিএনএস ডেস্ক: শিশুকে স্পর্শ বা আদর করার মধ্য দিয়ে যেমন বিশ্বাস আর আস্থা অর্জন করা যায়, তেমনি প্রিয়জনদের স্পর্শে বড়রাও পায় মানসিক সুখ আর শান্তি৷ বিষয়টি এক সমীক্ষায় আরো স্পষ্ট হয়েছে৷শুরু হয় মাতৃগর্ভেইশারীরিক স্পর্শে সাড়া দেয়া শুরু হয় মাতৃগর্ভেই৷ প্রতিটি মা-ই তা জানেন৷ গর্ভের ভ্রূণের বয়স যখন দু’মাস আর মাত্র দুই সেন্টিমিটার লম্বা তখন গর্ভবতী কোনো কারণে আনন্দিত হয়ে তার পেটে হাত বুলালেই তা টের পান৷ সেটাই হচ্ছে স্পর্শ বোঝার প্রথম প্রকাশ, জানান টাচ বা স্পর্শ বিষয়ক জার্মান গবেষক ড. মার্টিন

স্ট্রেস মুক্তির উপায় কী? জেনে নিন…

  

পিএনএস ডেস্ক : কাজ নিয়ে এখন সবারই চিন্তা৷ চাপ৷ বর্তমানে ইঁদুর দৌড়ে সামিল সবাই৷ ফলে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে চিন্তা৷ সবাই এর থেকে রেহাই পাওয়ার পথ খুঁজছে৷ কিন্তু মিলছে কই? ক্রমাগত বাড়ছে স্ট্রেস৷ কাজের চাপের জেরে সংসারেও বাড়ছে অশান্তি৷ তাতে আরও বাড়ছে চিন্তা ও চাপ৷ তা থেকে মুক্তির উপায় কী?খুশি কিন্তু প্রত্যেক মানুষের মধ্যেই লুকিয়ে থাকে৷ সেটা শুধু খুঁজে নিতে হয়৷ হাজার চেষ্টা করেও অনেকসময় তার নাগাল পাওয়া যায় না৷ তখন অভিজ্ঞদের স্মরণাপন্ন হতে হয়৷ তবে প্রাথমিক ভাবে কয়েকটি বিষয় মেনে চললে

অতিরিক্ত প্রক্রিয়াজাত খাবারে যেভাবে বাড়ে ক্যান্সারের ঝুঁকি

  

পিএনএস ডেস্ক: অতিরিক্ত মাত্রায় প্রক্রিয়াজাত করা খাবার গ্রহণে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে বলে জানিয়েছেন ফরাসী গবেষকরা। কেক, চিকেন নাগেট ও বড় পরিসরে উৎপাদিত রুটিকে 'অতিরিক্ত প্রকিয়াজাতকৃত' খাবারের মধ্যে রেখেছেন গবেষকরা।১ লাখ ৫ হাজার লোকের উপর চালানো এক পরীক্ষায় দেখা গেছে- যত বেশি এই ধরনের খাবার গ্রহণ করা হয়, ক্যান্সারের ঝুঁকি ততই বেড়ে যায়।এই গবেষণা নিয়ে অনেকে বিতর্কিত মত পোষণ করলেও বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সুস্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণই সর্বোৎকৃষ্ট।অতিরিক্ত প্রক্রিয়াজাত খাবার

অতিরিক্ত মেদের জারিজুরি শেষ জিরের জাদুতে!

  

পিএনএস ডেস্ক : ঝোলে-ডালে-অম্বলে, সবেতেই সে আছে। কখনও পাঁচফোড়নে, কখনও তেজপাতার সঙ্গে ফোড়ন দিতে, কখন শুধুই বাটা, কখনও গুঁড়ো৷ সবেতেই জিরের স্বাদ না থাকলে গোটাটাই মাটি৷ কিন্তু শুধুই যে রান্নায় সুগন্ধের জন্য জিরে ব্যবহার হয়, তা কিন্তু নয়। স্বাস্থ্যের কথা ভেবেও আমরা রান্নায় জিরে দিই। স্পাইসি এই মশলা যে আপনার শরীর থেকে বাড়তি মেদ ঝরাতেও ওস্তাদ, সে খোঁজ কি রাখেন? হাতের কাছে ক্যালেন্ডার থাকলে, জাস্ট তারিখ দেখে নিন৷ আর জিরের হাত ধরে শুরু হোক ১৫ দিনে মেদ কমানোর প্রক্রিয়া৷জিরে শুধু যে চর্বি বের করে

সিগারেটের সঙ্গে গরম চা? সাবধান...

  

পিএনএস ডেস্ক:হাতে জ্বলন্ত সিগারেট, সঙ্গে গরম চা। আর কি চাই? তাই না? কিন্তু সাবধান! এই যুগলবন্দী আপনার জন্য ভয়ানক স্বাস্থ্যঝুঁকি বহন করবে। গবেষণা বলছে, এই অভ্যাসে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়তে পারে অনেকটা। সম্প্রতি 'অ্যানালস অব ইন্টার্নাল মেডিসিন' জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এমন কথাই বলা হয়েছে। সমীক্ষা বলছে, যে ব্যক্তিরা নিয়মিত ধূমপান ও মদ্যপান করেন, তাদের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত গরম চা পান করাটা খাদ্যনালীর (ইসোফ্যাজিয়াল)ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়।গবেষণালব্ধ তথ্য বলছে, যারা দিনে অন্তত

Developed by Diligent InfoTech