কৃষি

নাঙ্গলকোটে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন

  

পিএনএস ডেস্ক: চলমান করোনা পরিস্থিতিতে এবার কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের গ্রামীণ জনপদে শ্রমিক সঙ্কটে পড়া কয়েকজন কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছে ‘সোস্যাল হেল্প অর্গানাইজেশন’ নামক একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। আজ মঙ্গলবার উপজেলার আদ্রা দক্ষিণ ইউনিয়নের তুগুরিয়া গ্রামের সমস্যাগ্রস্ত কৃষকের ধান কেটে দেন তারা। তাদের এমন মানবিক উদ্যোগ বেশ সাড়া জাগিয়েছে।জানা যায়, করোনা পরিস্থিতিতে উত্তরবঙ্গের শ্রমিক না আসায় বড় তুগুরিয়া গ্রামের কয়েকজন কৃষক শ্রমিক সংকটের কারণে পাকা ধান কেটে ঘরে তুলতে পারছিলেন না। কৃষকদের

নেত্রকোনার হাওরে ধানকাটা পরিদর্শন করলেন কৃষিমন্ত্রী

  

পিএনএস : চলতি বছর বোরো মৌসুমে মণ প্রতি ১ হাজার ৪০ টাকা দরে সারাদেশ থেকে ৮ লাখ মেট্রিক টন ধান কিনবে সরকার। এ উপলক্ষে নেত্রকোনায় হাওরে ধানকাটা পরিদর্শন করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।বৃহস্পতিবার দুপুরে নেত্রকোনার মদন উপজেলার গোবিন্দ শ্রী হাওরে ধানকাটা পরিদর্শনে আসেন তিনি।এ সময় কৃষকদের সাথে ধানের বাম্পার ফলন ও দর নিয়ে আলোচনা করেন কৃষিমন্ত্রী। পরে বর্তমান দুর্যোগের মাঝেও বিভিন্ন স্থান থেকে ধান কাটতে আসা শ্রমিকদের মাঝে কৃষি মন্ত্রণালয়ের বৈশাখী ভাতার অর্থ থেকে লুঙ্গি, গামছাসহ

অ্যাপের মাধ্যমে কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনবে সরকার

  

পিএনএস ডেস্ক: আসন্ন বোরোতে পরীক্ষামূলকভাবে ২২ উপজেলায় অ্যাপের মাধ্যমে কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনবে সরকার।সোমবার (২০ এপ্রিল) খাদ্য মন্ত্রণালয় থেকে অ্যাপে ধান সংগ্রহের উপজেলাগুলো অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অনুমোদরেন চিঠি খাদ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকের কাছেও পাঠানো হয়েছে।এবার খাদ্য মন্ত্রণালয়ের এই বোরো মৌসুমে অ্যাপের মাধ্যমে কৃষকের কাছ থেকে ৬৪ জেলার একটি করে উপজেলায় ধান ও ১৬ উপজেলায় (অ্যাপে আমন সংগ্রহ করা) মিলারদের কাছ থেকে চাল কেনার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সেই অবস্থান থেকে

বিশ্বনাথে শ্রমিক সংকটে ব্যাহত ধান কাটা

  

পিএনএস ডেস্ক: করোনাভাইরাসের প্রভাবে শ্রমিক সংকট দেখা দেয়ায় সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলায় ব্যাহত হচ্ছে ধান কাটা। এবারের বোরো ফসল ঘরে তুলতে বেকায়দায় পড়েছেন কৃষকরা। একদিকে শ্রমিক না পাওয়া অন্যদিকে কালবৈশাখী ঝড় ও শিলা বৃষ্টির আশঙ্কায় শঙ্কিত কৃষকরা। ইতিমধ্যে নিজেরা একটু একটু করে কাটতে শুরু করেছেন মাঠের পাকা ধান।সূত্র জানায়, এ বছর সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলায় বোরো ধান আবাদ হয়েছে ৭৬২ হেক্টর জমিতে। উৎপাদনও হয়েছে ভালো। প্রতি বছর এ সময়ে ধান কাটতে আসেন আশপাশ এলাকার শ্রমিকরা। এ বছর করোনা পরিস্থিতির কারণে তারা

করোনার প্রভাবে বিপাকে টমেটো চাষীরা

  

পিএনএস ডেস্ক:দিনাজপুরে সদরে বিস্তৃত সবুজের মাঠ যে দিকে তাকাই সেদিকেই টমেটোর আবাদ। থোকায় থোকায় সবুজ রঙের টমেটো ঝুলছে। এর মধ্যে কিছু কিছু টমেটো লাল রং হতে শুরু করেছে ।লাল রঙের টমেটোগুলি টসটসে লাল দেখলেই মন জড়িয়ে যায় । টমেটোগুলিকে চাষীরা বাজারজাত শুরু করেছে। লাল টকটকে টমেটো দেখার পর মন ব্যাকুল হয়ে যায় । মনে হয় অনেকগুলি কাচাই সালাদ করে খওয়া যাবে । কিন্তু লাল টকটকে টমেটো বাজার নিয়ে যাওয়ার মন খারাপ হয়ে যায়। এককেজি লাল টকটকে টমেটোর দাম ৩ টাকা থেকে ৪ টাকা ধরে বিক্রি করতে হচ্ছে।টমেটো চাষী

বকশীগঞ্জে কৃষকের মাঝে বীজ ও সার বিতরণ

  

পিএনএস, বকশীগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি : জামালপুরের বকশীগঞ্জে ২০১৯-২০ অর্থ বছরে খরিপ-১ মৌসুমে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় উফশী আউশ ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষকের উৎসাহ প্রদানের জন্য বিানমূল্যে বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কার্যালয়ের উদ্যোগে সোমবার উপজেলার ৫০০ কৃষককে বীজ ও সার বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আ.স.ম.জামশেদ খোন্দকার এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।বীজ ও সার বিতরণকালে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. আলমগীর আজাদ, উপজেলা

নবাবগঞ্জে বোরো ফসলের মাঠে সবুজের সমারোহ

  

পিএনএস, নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : চলতি বোরো মৌসুমে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলা এলাকায় বোরো ফসলের মাঠে মাঠে সবুজের সমারোহে পরিণত হয়েছে। মাঠগুলি যেন প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এক লিলা ভুমিতে পরিণত হয়েছে। যে দিকে চোখ যায় সেদিকে সবুজ আর সবুজ। কৃষকেরা জানান চলতি বোরো মৌসুমে এই এলাকায় সার বীজ ও সেচের তেমন কোন সমস্যা না থাকায় তারা যথা সময়ে বোরো চাষ ও পরিচর্জা করতে পেরেছে। ফলে মাঠে চাষাবাদের বর্তমান অবস্থা বেশ ভাল দেখা যাচ্ছে এবং তারা ভাল ফলন পাবারও আশা করছে। তারা সম্প্রতি করোনা ঝুঁকিতে কিছুটা শংকিত

করোনায় ফুলচাষীরা কেমন আছেন?

  

পিএনএস ডেস্ক: বিশ্ব মহামারি করোনা সংক্রমণ রোধে বাংলাদেশেও চলছে ঘরে থাকার নির্দেশ। চলছে সাধারণ ছুটি। বন্ধ রয়েছে দেশব্যাপী পরিবহন ব্যবস্থা। খাদ্য, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য এবং ওষুধপত্র ছাড়া সবরকম দোকানপাটও বন্ধ। কেনাকাটাও বন্ধ। পারিবারিক, সামাজিক বা ধর্মীয় অনুষ্ঠানাদিসহ সবরকম উৎসব-আনন্দ থেমে গেছে। জনজীবন বলতে গেলে স্থবির হয়ে পড়েছে।এমন প্রাণান্তকর অবস্থায় কে কিনবে ফুল? কেনইবা কিনবে? কিন্তু গ্রামীণ অর্থনীতিতে ফুলের চাষ করে যারা জীবিকা অর্জন করত তারা কী অবস্থায় আছে? ফুলের বাজার বা শহরে

১৮ লাখ ২৫ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য কেনার সিদ্ধান্ত সরকারের

  

পিএনএস ডেস্ক : চলতি বোরো মৌসুমে ১৮ লাখ ২৫ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এরমধ্যে ১০ লাখ মেট্রিক টন চাল, ৬ লাখ মেট্রিক টন ধান ও ৭৫ হাজার মেট্রিক টন গম কেনা হবে। এর বাইরে দেড় লাখ মেট্রিকটন বোরো আতপ চাল কিনবে সরকার। ধানের পুরোটাই অর্থাৎ ৬ লাখ মেট্রিক টন মাঠ পর্যায়ে সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে কেনা হবে। ধান, চাল ও গমের মূল্য নির্ধারণ করে দিয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়। আগামী ১৫ এপ্রিল থেকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত এই খাদ্যশস্য ক্রয় করবে সরকার।খাদ্যমন্ত্রী ও কৃষিমন্ত্রী দুই মন্ত্রণালয়ের

জামালপুরে ভুট্টা চাষে চাষির মুখে হাসি

  

পিএনএস ডেস্ক: জামালপুরের সরিষাবাড়ি, ইসলামপুর, মাদারগঞ্জ, দেওয়ানগঞ্জ, বকশীগঞ্জ, মেলান্দহ ও জামালপুর সদরের চরাঞ্চলে ভুট্টার বাম্পার ফলন হয়েছে। চাষিরা ভুট্টা তুলতে এখন ব্যস্ত সময় পার করছে। পাইকারের লোক ক্ষেত থেকেই শুকনো ভুট্টা ৮১৫ টাকা থেকে ৮৪০ টাকা মন দরে কিনে নিচ্ছে। চরাঞ্চলের বিস্তীর্ণ পলি মাটির জমিতে যে দিকে তাকায় শুধু ভুট্টা আর ভুট্টার নাকড়ি পড়ে আছে। কেউ ভুট্টার থোর গাছ থেকে তুলে জড়ো করছে। আবার কেউ কেউ একত্র করছে। কোন কোন কৃষক আবার মেশিনে মাড়াই করছেন। মাড়া করা ভুট্টা কৃষাণীরা